+

সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হল আব্বাস সিদ্দিকীর আরেকটি ভিডিও! এবার জনতার কাছে ক্ষমা চাইলেন তিনি

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ বেশি কিছুদিন আগে ফুরফুরা শরীফের পীরজাদা আব্বাস সিদ্দিকীর (abbas siddiqui) একটি বিতর্কিত ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়। ওই ভিডিওতে দেখা গেছে যে, আব্বাস সিদ্দিকী একটি ধর্মীয় সভায় গিয়ে বলছেন, আল্লাহ ভারতে এমন একটা ভাইরাস পাঠাক যাতে ১০, ২০ পঞ্চাশ কোটি ভারতীয় মারা যাক। এই ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পরেই আব্বাস সিদ্দিকীকে নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় …
সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হল আব্বাস সিদ্দিকীর আরেকটি ভিডিও! এবার জনতার কাছে ক্ষমা চাইলেন তিনি

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ বেশি কিছুদিন আগে ফুরফুরা শরীফের পীরজাদা আব্বাস সিদ্দিকীর (abbas siddiqui) একটি বিতর্কিত ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়। ওই ভিডিওতে দেখা গেছে যে, আব্বাস সিদ্দিকী একটি ধর্মীয় সভায় গিয়ে বলছেন, আল্লাহ ভারতে এমন একটা ভাইরাস পাঠাক যাতে ১০, ২০ পঞ্চাশ কোটি ভারতীয় মারা যাক। এই ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পরেই আব্বাস সিদ্দিকীকে নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় উঠেছিল বিতর্কের ঝড়।

ওই ভিডিওকে হাতিয়ার করে অনেকেই আব্বাস সিদ্দিকীর কঠোর শাস্তির দাবি করেছিলেন। এমনকি ওনার নামে থানায় অভিযোগও দায়ের হয়েছিল। সম্ভবত দিল্লীতে সিএএ নিয়ে প্রতিবাদের নামে হিংসা ছড়ানোর পর আব্বাস সিদ্দিকী এহেন মন্তব্য করেন। উনি সেখানে বলেছিলেন যে, আমি শুনেছি দিল্লীতে মসজিদে ভাঙচুর চালানো হচ্ছে, আগুন লাগানো হচ্ছে। আল্লাহ এখন ভারতে ভাইরাস পাঠিয়ে ৫০ কোটি মানুষ মেরে দিক। এমনকি উনি এও বলেন যে, এতে আব্বাস সিদ্দিকীও যদি মারা যায়, তাহলেও কোন ব্যাপার না।

একদিকে ভারতে যখন করোনার মহামারীতে বিপর্যস্ত তখন আরেকদিকে এহেন মন্তব্য ভারতবাসীর মনে যে আঘাত দেবে সেটা বলাই বাহুল্য। তবে উনি এই ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পর জনতার কাছে ক্ষমাও চেয়ে নিন। উনি আরেকটি ভিডিওর মাধ্যমে এরকম মন্তব্যের জন্য ক্ষমা চান।

উনি বলেন, আমি জাতি ধর্ম নির্বিশেষে জনতার পাশে দাঁড়িয়েছি। কিন্তু বিগত কয়েকদিন ধরে সোশ্যাল মিডিয়ায় আমার মন্তব্যকে কাটছাঁট করে বিকৃত করে দেখানো হচ্ছে। আমি এতে আঘাত পেয়েছি। উনি বলেন, আমি করোনার বিরুদ্ধে যুদ্ধে মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে এক লক্ষ একটাকা দান করেছি। এমনকি আইসোলেশন ওয়ার্ড বানানোর ব্যবস্থাও করে দিয়েছি। উনি সেই ভাইরাল ভিডিওর জন্য দেশবাসীর কাছে ক্ষমাও চান।

facebook twitter